সর্বশেষ সংবাদ
প্রচ্ছদ / সচেতনতা / সচেতনতাই পারবে করোনা থেকে দেশকে মুক্ত করতে।

সচেতনতাই পারবে করোনা থেকে দেশকে মুক্ত করতে।

বগুড়া প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাস বর্তমান বাংলাদেশে দ্বিতীয় ধাপে মহামারী আকার ধারণ করেছে। এ বিষয়ে দেশবাসীকে সচেতন হতে হবে বলে মনে করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক, মানবাধিকার কর্মী, চিকিৎসা প্রযুক্তিবিদ মোঃ আরমান হোসেন ডলার। এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে তিনি করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকার নিয়মাবলী আমাদের কাছে তুলে ধরেন তা নিম্নরূপঃ

সারাদেশে করোনা ভাইরাস এর প্রকোপ বাড়ছে। নিরাপদ থাকতে তাই সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন ও সঠিক নিয়মে মাস্ক ব্যবহার করুনঃ

😷 মাস্ক দিয়ে নাক ও মুখ ঢাকার সময় নিশ্চিত করুন মুখ এবং মাস্কের মাঝে যেন কোন ফাঁকাস্থান না থাকে।

✋ মাস্ক পরে থাকা অবস্থায় মাস্কে হাত দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

🚫 যেসকল মাস্ক কেবল একবার ব্যবহারযোগ্য, সেগুলো পুনরায় ব্যবহার করা যাবে না। ব্যবহৃত মাস্ক স্যাঁতসেঁতে হয়ে যাওয়া মাত্র নতুন মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

🚮 মাস্ক খোলার সময় পিছন দিক থেকে খুলতে হবে, মাস্কের সামনের অংশে হাত দেওয়া যাবেনা, এবং মাস্ক খোলার সাথে সাথে তা ঢাকনাযুক্ত ময়লার পাত্রে ফেলে দিতে হবে।

👏 খেয়াল রাখবেন, মাস্ক পরার পূর্বে, ব্যবহারকালীন সময় মাস্কে হাত দিলে এবং মাস্ক খোলার পর অবশ্যই সাবান ও পানি বা অ্যালকোহল-ভিত্তিক স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করে নিতে হবে।।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতেঃ

✅ জরুরি সেবায় নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব সরকারি-বেসরকারি অফিস, প্রতিষ্ঠান, শিল্পকারখানা ৫০ শতাংশ লোকবল দিয়ে পরিচালনা করতে হবে।

✅ সভা, সেমিনার, প্রশিক্ষণ, কর্মশালা যথাসম্ভব অনলাইনে আয়োজন করতে হবে।

✅ কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ ও অবস্থানের পুরোটা সময়ই বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরাসহ সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

✅ গর্ভবতী, অসুস্থ, ৫৫ বছরের অধিক বয়সী ব্যক্তিদের বাসায় থেকে কাজের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

✅ যে কোন প্রয়োজনে বাসার বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরা সহ সকল স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা আইনানুযায়ী বাধ্যতামূলক।

✅ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী খোলা ও উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বেচাকেনা করতে হবে।

👉 সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয়সহ যেকোনো উপলক্ষে জনসমাগম সীমিত করতে হবে এবং প্রয়োজনে উচ্চ সংক্রমণ এলাকায় জনসমাগম নিষিদ্ধ থাকবে।

👉 ধর্মীয় উপাসনালয় সহ সকল হোটেল, রেস্তোরাঁ, পর্যটন, বিনোদন কেন্দ্র, সিনেমা হল, থিয়েটার হলে জনসমাগম সীমিত করতে হবে।

👉 সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় আন্তঃজেলা যানবাহন চলাচল সীমিত করতে হবে, প্রয়োজনে বন্ধ করতে হবে।

❎ গণপরিবহনে ধারণক্ষমতার অর্ধেকের বেশি যাত্রী পরিবহন করা যাবে না।

❎ দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।

❎ অপ্রয়োজনে রাত ১০টার পর ঘর থেকে বের হওয়া যাবেনা।।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধেঃ

✅ সকল বিদেশফেরত যাত্রীদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন পূরণ করতে হবে।

✅ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বা করোনার লক্ষণ রয়েছে এমন ব্যক্তির আইসোলেশন এবং তাঁর সংস্পর্শে আসা অন্যদেরও কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে হবে।।

চিকিৎসা প্রযুক্তিবিদ,
মোঃ আরমান হোসেন ডলার,
স্টাফ রিপোর্টারঃ দৈনিক মুক্ত বার্তা।
সাধারন সম্পাদক, বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতি, বগুড়া জেলা শাখা।।

Advertisement

Check Also

গরীব এবং দুস্থদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলেন ল্যাবরেটরী টেকনোলজিষ্ট পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি।

আরমান হোসেন ডলার (বিশেষ প্রতিনিধি) বগুড়াঃ বাংলাদেশ ল্যাবরেটরি টেকনোলজিষ্ট পরিষদ, কেন্দ্রীয় কমিটির সার্বিক সহযোগিতায়, আজ …