নন্দীগ্রামে জবর দখলে বাধা দেওয়ায় শিশু সহ বৃদ্ধকে পিটিয়ে জখম

 


নন্দীগ্রাম প্রতিনিধিঃ—বগুড়ার নন্দীগ্রামে জবর দখলে বাধা দেওয়ায় আব্দুল মালেক(৭৬) নামে এক বৃদ্ধ ও ১২ বছরের শিশুকে পিটিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। এসময় গ্রামবাসী শিশু সহ বৃদ্ধকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠিয়ে দেয়। এই ঘটনায় বৃদ্ধের পরিবারের আরো ৩ সদস্য মারধরের শিকার হয়ে গুরুতর আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ৩নং ভাটরা ইউনিয়নের দূর্জয়পুর গ্রামে। ভুক্তভোগীর পরিবার ও গ্রামবাসীর কাছে প্রাপ্ত তথ্যে জানাযায়, দুর্জয়পুর গ্রামের মৃত কলিমুদ্দিন প্রামাণিকের ছেলে বৃদ্ধ আব্দুল মালেকের দলিলের সম্পত্তি (পুকুর) যা ৫০/৬০ বছর ধরে ভোগ দখল করে আসছে, হঠাৎ করেই একই গ্রামের কাশেম আলীর ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৩৫) নিজেদের পুকুর দাবী করে দখলের চেস্টা করে। এই বিষয়ে গ্রামে, ইউনিয়ন পরিষদে, স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে, এমনকি থানাতেও বৈঠক হয়েছে কিন্তু কোন বৈঠকেই বিবাদী দেলোয়ার হোসেন তাদের পক্ষে পুকুরের কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। উক্ত বিষয়ে ভুক্তভোগী বৃদ্ধ আব্দুল মালেক বলেন, ঘটনার দিন দেলোয়ার ও তার পরিবারের লোকজন আমার পুকুরে জোর করে মাছ ধরতে নামে, আমি বাধা দেওয়ায় তারা আমাকে আমার শিশু নাতিকে সহ পরিবারের সদস্যদের পিটিয়ে জখম করেছে। আমার দলিলের সম্পত্তি (পুকুর) যা আজীবন ভোগ দখল করে আসছি, হঠাৎ বিবাদীরা পুকুরটি তাদের দাবী করে দখলের চেষ্টা করছে। কিন্তু এই বিষয়ে তারা আজ পর্যন্ত কোথাও কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। বৈঠক বসলেই তারা ভুল শিকার করে পুকুরে আসবেনা বলে ওয়াদা করে, পরবর্তীতে আবার পুকুরটি দখল নিতে অবৈধ ভাবে পুকুরে জাল নামিয়ে মাছ ধরার চেষ্টা করে, যখনি বাধা দেই তখনি আমাদেরকে পিটিয়ে আহত করে। এই পর্যন্ত কয়েক বার পুকুরটি দখলের চেষ্টা করেছে এবং আমাদের কে পিটিয়ে জখম করেছে। উক্ত বিষয়ে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদের সাথে কথা বললে তিনি জানান, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (1) in /home/ajkersangbad/public_html/wp-includes/functions.php on line 5275

Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (1) in /home/ajkersangbad/public_html/wp-includes/functions.php on line 5275