বগুড়া ডিবি পুলিশের অভিযানে অটোরিকশা চালক মেহেদী খুনের দায়ে ৩ আসামী গ্রেফতার

এস আই সুমন,স্টাফ রিপোর্টারঃ চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই করলেও শেষ পর্যন্ত অটোরিকশা বিক্রি করতে পারেনি। অটোরিকশা রাস্তায় ফেলে ছিনতাইকারীরা আত্মগোপনে গেলেও পুলিশের হাতে ধরা পড়ে তারা। পরে পুলিশকে জানায় তাদেরই পরিচিত অটোরিকশা চালক মেহেদীকে বেড়ানোর কথা বলে সারিয়াকান্দিতে যমুনার চরে নিয়ে যায়। সেখানে কাঁশবনের মধ্যে মেহেদীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। এরপর মেহেদীর অটোরিকশাটি কোথাও বিক্রি করতে না পেরে রাস্তায় ফেলে তারা আত্মগোপন করে।
বুধবারর (৩ নভেম্বর) বগুড়ার পুলিশ সুপার সুদীপ চক্রবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এতথ্য জানিয়েছেন।
তিনি জানান,গত ৩১ অক্টোবর বেলা ১২টার দিকে সারিয়াকান্দি উপজেলার প্রেম যমুনার ঘাটের যমুনা নদীর পূর্বপারে চরের কাঁশবনে জেলার এক যুবকের মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয়। সারিয়াকান্দি থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধারের পর তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় জানতে পারে মেহেদী (২৬) নামের ওই যুবক গাবতলী উপজেলার সন্ধ্যাবাড়ি গ্রামের আনিছার প্রাং এর ছেলে। তিনি পেশায় অটোরিকশা চালক। ৩১ অক্টোবর সকালে তিনি অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেননি।
এদিকে নিহতের পরিচয় শনাক্তের পর সারিয়াকান্দি থানা ও ডিবি পুলিশ যৌথভাবে হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের শনাক্ত ও গ্রেফতারে মাঠে নামে। ২ নভেম্বর রাতে বগুড়া গোয়েন্দা বিভাগ( ডিবি) পুলিশের ইনচার্জ(ওসি) সাইহান ওলিউল্লাহ এর নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি দল তিনজনকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলোঃ বগুড়া শহরের নারুলী সুলতান পট্টির মৃত মোখলেছারের ছেলে শাকিব হাসান (২৪), একই এলাকার নুর আলমের ছেলে সোহেল রানা (২৩) ও সাবগ্রাম কুশরাপাড়ার নুরে আলমের ছেলে আপেল প্রাং(২০)। পরে তাদের দেখানো মতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত চাকু, নিহতের মোবাইল ফোন ও শহরের চকসুত্রাপুর এলাকা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় অটোরিকশাটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার বলেন, গ্রেফতারকৃত তিনজন জানায়, নিহত অটোরিকশা চালক মেহেদী তাদের পূর্বপরিচিত। ৩০ অক্টোবর মোবাইল ফোনে মেহেদীকে ডেকে নিয়ে দুপুরে শহরের চেলোপাড়া চাষি বাজার এলাকা থেকে তারা সারিয়াকান্দি প্রেম যমুনার ঘাটে বেড়াতে যায়। সেখানে তারা অটোরিকশা নদীর পশ্চিম পাড়ে রেখে নৌকা যোগে নদী পার হয়। এরপর চরের কাঁশবনে বসে গল্প করার সুযোগে তিনজন মিলে মেহেদীকে উপুর্যপুরি ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে। পরে তারা মেহেদীর অটোরিকশা নিয়ে বগুড়া শহরে আসে এবং বিভিন্নস্থানে বিক্রির চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে রাস্তায় ফেলে রাখে। পুলিশ সুপার বলেন, হত্যার সাথে জড়িত তিনজনকেই গ্রেফতার এবং ছিনতাইকরা অটোরিকশা উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

 


Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (1) in /home/ajkersangbad/public_html/wp-includes/functions.php on line 5275

Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (1) in /home/ajkersangbad/public_html/wp-includes/functions.php on line 5275