সর্বশেষ সংবাদ
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / যশোরে ইন্টারনেট গ্রাহকদের সাথে ‘লিংক-থ্রি’র প্রতারণার অভিযোগ

যশোরে ইন্টারনেট গ্রাহকদের সাথে ‘লিংক-থ্রি’র প্রতারণার অভিযোগ

নিলয় ধর, যশোর প্রতিনিধি : যশোরে ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ‘লিংক-থ্রি’র গ্রাহকরা প্রতারণার শিকার হচ্ছেন। প্রতারণার মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে হাজার হাজার টাকা। শুধু তাই নয়, সেবার নামেও চলছে প্রতারণা। জানা গেছে, গ্রাহকদের ভোগান্তিতে জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন ভাবে মুখরোচক বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে গ্রাহক আকৃষ্ট করলেও আদতে সেই অনুযায়ী সেবা দিতে পারছে না প্রতিষ্ঠানটি।তাদের সেবার সমস্যা ২৪ ঘন্টাতে হচ্ছে।

এই প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে চুক্তির সময়ে সকল গ্রাহককে সর্বোচ্চ সেবা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিলেও সংযোগ প্রদানের পর আর তাদের দেখা পাওয়া যায় না কল দিয়ে ডাকলে বা এই প্রতিষ্ঠানের যশোরের সমন্বয়কারীকে কখনো ফোনে পাওয়া যায় না। তাকে ফোন করা হলে হয় বন্ধ না হয় তিনি রিসিভ করেন না। এই বিষয়ে অভিযোগে জানা গেছে, লিংক-থ্রি টেকনোলজি লিমিটেড (লিংক-থ্রি’র) সর্বোচ্চ সেবার প্রতিশ্রুতি দিয়ে গ্রাহক সৃষ্টি করা হয়। প্রতিশ্রুতি পেয়ে সেবা গ্রহণ করলেও দিনে বেশির ভাগ সময়ই ইন্টারনেটের গতি থাকে দূর্বল বা মোটেও চলে না এমনি হয়।

একেবারেই না থাকাসহ নানাবিধ সমস্যায় জন্য গ্রাহকরা বার বার ‘লিংক-থ্রি’ কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করেও কোন সমাধান পান না। কবে সমাধান হবে সে ব্যাপারেও কেও কিছু বলতে পারে না। অথচ মাস শেষ হলেই গ্রাহকদের লাইন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়।লিংক থ্রি এর গ্রাহক হাসানুজ্জামান লেলিন। যার আইডি নং ৭৬০৯৯। তিনি অভিযোগ করেন, মাসের শুরুতে টাকা নিয়ে নেয় সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান। বিল দিতে ১ দিন বিলম্ব হলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়।

এ ছাড়াও বিল জমা দেওয়ার (২৪ ঘণ্টা) পার হতে না হতেই সংযোগে দেখা দেয় ত্রুটি সংযোগে এত ঝামেলা দেয় কাজ করে না । যা মাসজুড়ে চলতে থাকে।মোবাইলে ব্যাংকিং বিকাশের মাধ্যমে টাকা দেওয়ার পর তাদের ফোন করে আর পাওয়া যায় না। যদিও বা ফোন রিসিভ করে তখন জবাব দেয় ৭২ ঘণ্টার আগে সংযোগ ঠিক করা সম্ভব হবে না।
তিনি আরও এই বিষয়ে অভিযোগ করেছেন, গত জুলাই মাসে তার নেট লাইন কেটে দেওয়া হয়। এরপর ১ আগস্ট লিংক থ্রি টেকনোলজির পক্ষ থেকে এসএমএস’র মাধমে জানানো হয়েছিলো, ফিরে আসলেই পাবেন ১ মাস ফ্রি ইন্টারনেট সেবা। সাথে ২০% ডিসকাউন্ট। তাকে ২০% ডিসকাউন্ট দেওয়া হলেও ১ মাস ফ্রি সেবা দেওয়া হয়নি। আর এভাবেই প্রতারণা চালিয়ে যাচ্ছে গ্রাহকদের সাথে।

শুধু হাসানুজ্জামানই নয়, তার মতো আরও প্রতারণার শিকার হয়েছেন সবুজ আহমেদ নামে এক গ্রাহক। তিনি অভিযোগ করেন, ৩ মাস আগে লিংক-থ্রি সংযোগ নিয়েছিলাম। এরপর থেকেই প্রতিদিন অন্তত ২০ থেকে ৩০ বার নেট আসে আর যায়,এভাবে নেট চালানো যায় না। অফিসিয়াল নম্বরে ফোপন করা হলেও কোন সমাধান পাওয়া যায় না। নানা রকম টালবাহানা করে। আর কাজের সময় নেট এত দুর্বল যে কাজ করার সময় কান্না পায়।এই ব্যাপারে আরো জানানো হয়, লিংক-থ্রি টেকনোলজি লিমিটেডের ০৯৬৭৮১২৩১২৩ নম্বরে ফোন করা হলে মেহজাবিন নামে এক সাপোর্ট ইঞ্জিনিয়র জানিয়েছেন,তাদের সেবার মান ভালো চলছে। কিছু কিছু সমস্যা হয়ে থাকে। আমাদের কর্মী বাহিনী সেবা দিতে পারে বা দিতে যায়।

অভিযোগের বিষয়ে তার কাছে জানতে চাওয়া হলে বলেছেন, এই সব অভিযোগ সব কোম্পানির বিরুদ্ধে আছে। আমাদের বিরুদ্ধেও আছে,অভিযোগ থাকবেই। কেউ চাউলে সেবা নিতে পারে,না চাইলে নাও নিতে পারে। ভালো লাগলে নেবে, না লাইলে না নেবে। আমরা কারো হাত পায় ধরে সেবা দিয় না। ফ্রি’র মাসিক বিলে বিষয়ে জানতে চাইলে বলেছেন, এই রকম কোন অফার তাদের নেই।কোম্পানির পক্ষ থেকে এসএমএস’র মাধ্যমে ম্যাসেজ দিয়েছে জানানো হলেও তিনি টালবাহানা করেছেন।

Advertisement

Check Also

বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়াতে এবার নিজেই সিলেট যাচ্ছেন ইলিয়াস কাঞ্চন

অনলাইন ডেস্ক বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়াতে এবার নিজেই সিলেট যাচ্ছেন ইলিয়াস কাঞ্চন আগামী ২৬ তারিখ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.