সর্বশেষ সংবাদ
প্রচ্ছদ / চট্রগ্রাম বিভাগ / চট্টগ্রামে ৪৫০০ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন সামাজিক সংগঠন অঙ্গিকার বাংলাদেশ

চট্টগ্রামে ৪৫০০ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন সামাজিক সংগঠন অঙ্গিকার বাংলাদেশ

 

জিয়াউর রহমান জিতু,মীরসরাই(চট্টগ্রাম)থেকেঃ সারাদেশে করোনা ভাইরাস এর কারণে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটির শুরু থেকেই, অর্থাৎ ২৪ মার্চ ২০২০ তারিখ হতেই লকডাউনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমজীবী, দিনমজুর, কর্মচারী আর নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী উপহার পৌঁচে দেয় চট্টগ্রামের মানবিক আর দাতব্য সংগঠন অঙ্গীকার বাংলাদেশ।

৩ লা মে, ২০২০ পর্যন্ত অঙ্গীকার বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগরীর ১৬ টি থানার প্রায় ৯০ টির মত কলোনিতে চার সদস্যের মোট ৩৫০০ পরিবারের মাঝে আনুমানিক ১০ দিনের খাদ্য সামগ্রী মানুষের ঘরে ঘরে দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছেন এ সংগঠনটি।

একই সাথে অঙ্গীকার বাংলাদেশের পেইজে, গ্রুপে এবং মোবাইলে আসা বিভিন্ন অভাবগ্রস্থ মানুষের অনুরোধে প্রায় ৫০০ এর মত নিম্নমধ্যবিত্ত আর মধ্যবিত্ত পরিবারে কাছে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে সংস্থার স্বেচ্ছাসেবকরা। এসব কাজে ব্যবহৃত হয়েছে একটি টেম্পু ভ্যান এবং স্বেচ্ছাশ্রম দেয়া তিনজন মহৎ প্রাণ প্রাইভেট গাড়ির মালিক। যখনই ডাকা হয়েছে উনারা গাড়ি নিয়ে উপহার বিতরণে উপস্থিত হয়েছেন, ছুটে বেড়িয়েছেন শহরের বিভিন্ন প্রান্তে।

ইতিমধ্যে অঙ্গীকার বাংলাদেশ প্রায় ৪০০০ মাস্ক বিভিন্ন কলোনিতে বিতরণ করেছে এবং দাফন-কাফনের জন্য দায়িত্ব প্রাপ্ত চট্টগ্রামের “ইকরামুল মুসলিমিন” এর সদস্যদের জন্য দিয়েছে ফ্রি ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী। চট্টগ্রামের কিছু হাসপাতালের ডাক্তারদের মধ্যেও বিতরণ করেছে পিপিই সেট।

এছাড়াও অঙ্গীকার বাংলাদেশ চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানার সহযোগিতায় ভাসমান ৫০০ জন মানুষের মাঝে দিয়েছে রান্না করা খাবার এবং কোতোয়ালি থানার সহযোগিতায় ১লা মে, শ্রমিক দিবসে ৫০০ জন মানুষের মাঝে বিতরণ করেছে রমজান মাসের ইফতার প্যাকেট।

অঙ্গীকার বাংলাদেশের এসব কার্যক্রমে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন চট্টগ্রাম লেডিস ক্লাব, ইনার হুইল ক্লাব আগ্রাবাদ, ইনার হুইল ক্লাব লুসাই হিল, CHARITY ORGANISATION OF BANGLADESH (COBA),Bangladesh Marine community, Singapore (BMCS),G Smile এবং দেশ বিদেশের অসংখ্য মানবিক মানুষ।

অঙ্গীকার বাংলাদেশ ২০১৬-১৭ হতে বিভিন্ন সামাজিক এবং মানবিক কাজে যুক্ত। তাদের নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত হচ্ছে ৯৫ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশুর ফ্রি টিউশন স্কুল “আলোর পথে”। এছাড়াও শীতবস্ত্র, যাকাত প্রজেক্ট, রমজানের বাজার, ঈদের উপহার, বন্যা এবং ঘুর্ণিঝড়সহ অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগে ত্রাণ বিতরণসহ সারাবছর জুড়েই রয়েছে অঙ্গীকারের অসংখ্য কার্যক্রম।

অঙ্গীকার বাংলাদেশের সভাপতি আতিক খান জানান, করোনা প্রজেক্ট দেশের মানুষের সেবায় অব্যাহত থাকবে।

এসব কার্যক্রমে অংশ নেন অঙ্গীকার বাংলাদেশ এর স্বেচ্ছাসেবক শহীদুল ইসলাম মামুন, নাজিম উদ্দীন রিফাত,মোহাম্মদ হেমায়েত উদ্দিন ডেনিম,মোহাম্মদ মোস্তফা আকবর চৌধুরী, ওয়াসিম আকরাম, ইমতিয়াজ আহমেদ, গিয়াস উদ্দিন রনি,সানাউল্লাহ শুভ,জাবেদুল ইসলাম,আকাশ,নাদিম মোস্তফা, শাহরিয়ার মাহমুদ ঈশাদ,আকবর আলী মানিক,জোনায়েদ চৌধুরী রিমেল,মঈনুল হাসান তুষার,আল আমিন,আরেফীন আসিফ,সাজিদুর রহমান,সোহাগ খান,সাগর,জাহিদ হোসেন,রাব্বি,তুহিন খুরশেদ সহ প্রমুখ।

Advertisement

Check Also

লামায় পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম LARC & PM বৃদ্ধির লক্ষ্য প্রস্তুতিমূলক কর্মশালা 

লিটন চৌধুরী, লামা(বান্দরবান) থেকেঃ বান্দরবানের লামা উপজেলায় পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম (LARC&PM) বৃদ্ধির লক্ষ্যে গ্রহীতা মেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *