সর্বশেষ সংবাদ
প্রচ্ছদ / অর্থনীতি / কুমিড়া পুন্ডিত পুকুড়ে এল,জি,ডি গোডাউন ঘর টি মানুষের জীবন মরন ঝুঁকি পূর্ন অবস্থায়।

কুমিড়া পুন্ডিত পুকুড়ে এল,জি,ডি গোডাউন ঘর টি মানুষের জীবন মরন ঝুঁকি পূর্ন অবস্থায়।

শাহীন সাজু নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ-

বগুড়া জেলা নন্দীগ্রাম উপজেলার ৩নং ভাটড়া ইউনিয়নে কুমিড়া পুন্ডিত পুকুড়ের এল,জি,ডি গোডাউন ঘর টি অবহেলিত অবস্থায় পরে থাকার কারনে মানুষের জীবন মরনের সমস্যা হয়ে পরেছে।
কারন কুমিড়া পুন্ডিত পুকুড় বিশাল একটি হাট ও বাজার। সেখানে শত শত মানুষ জমায়েত হয়। গোডাউন ঘরের নিচ দিয়ে মানুষ চলা চল করে এবং গোডাউন ঘরের নিচেই পিঁয়াজ রসুন আদার দোকানদার ও তরকারি কাঁচা বাজার বসে। সেখানে শত শত মানুষ বেচা কেনা করেন। সেখানেই দাঁড়িয়ে আছে আধা ভাংগা ৩০,৪০ ফুট উঁচু এই গোডাউন ঘর টি। গোডাউন ঘরের দেওয়ালের নিচের ইঁট খুলে যাওয়ার কারনে অনেক জায়গায় দেওয়াল ছাদের সংগে ঝুলন্ত অবস্থায় আছে অনেক পিলার ভেঙ্গে ভাঁজ হয়ে গেছে দেওয়ালে বড় বড় ফাটল ধরে হেলে গেছে। যেকোন সময়ে ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের কোন দূর্ঘটনা। আল্লাহ না করুক যদি দেওয়াল ছাদ ধসে পরে তাহলে কত মানুষ মারা যাবে। কত মানুষ আহত হবে তা আল্লাহ পাকই জানেন। যদি কোন কারন বসত এমন দূর্ঘটনা ঘটে যায় তাহলে এর দায় ভার কে নিবে এটাই জনগনের প্রশ্ন।

এই ইউনিয়নের স্থানীয় বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ মোরশেদুল বারি তিনি একজন সুনামধন্য চেয়ারম্যান তিনি সদা সর্বদা জনগনের কল্যানের জন্য কাজ করে যাচ্ছন। কিন্ত তিনি হয়ত মনের ভূলে এই চিন্তা মাথায় আসেনি। তাই জনগনের দাবি চেয়াম্যান সাহেব যেন এই গোডাউন ঘরের উর্ধতোন কর্মকর্তা যিনি এর দায়িত্বে আছেন তিনাদের সঙ্গে যোগা যোগের মাধ্যমে তদন্ত করে দ্রত এর সমাধান করা হয়। এইটাই এলাকার জন গনের দাবি এবং প্রত্যাশা।

Advertisement

Check Also

শিক্ষার্থীদের টিকা দিয়ে খোলা হবে স্কুল-কলেজ

  অনলাইন ডেস্ক : স্বাস্থ্যঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পক্ষে যারা দাবি তুলেছেন, তাদের সমালোচনা …